বোরহানউদ্দিনে গৃহপরিচারিকার যৌনাঙ্গে মরিচের গুড়া লাগিয়ে নির্যাতন

প্রকাশিত: ১২:০২ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৮, ২০১৮ | আপডেট: ১২:০৪:পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৮, ২০১৮
বোরহানউদ্দিনে গৃহপরিচারিকার যৌনাঙ্গে মরিচের গুড়া লাগিয়ে নির্যাতন

ভোলা বোরহানউদ্দিন উপজেলার পৌর বালু ব্যবসায়ী হাওলাদার সেনেটারীর মালিক মো: রফিক হাজীর (বালু রফিক) স্ত্রী কতৃক গৃহপরিচারিকাকে বিভিন্ন উপায়ে শারিরিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার ১১ ঘটিকার সময় গৃহপরিচারিকা বাচার তাগিদে ঘরের ছাদ থেকে গাছ বেয়ে পালিয়ে র‌্যাব হেলালের বাসায় আশ্রয় নিলে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

ঘটনার অভিযোগে আহত গৃহপরিচারিকা সাফিয়া সাথী (১৫) জানান, শুক্রবার তার স্ত্রী ভাতে পোড়া দাগ লেগেছে অভিযোগ তুলে খুন্তি দিয়ে আমাকে সারা শরীর মেরে মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত করে এবং যৌনাঙ্গে মরিচের গুড়া লাগিয়ে দেয় আমি মৃত্যু যন্ত্রনায় আত্বচিৎকার করতে থাকি কিন্তু রফিক হাজীর ভয়ে কেউ আমাকে উদ্ধারে এগিয়ে আসাতে সাহস করেনি। আমাকে ঘরে আটকিয়ে রাখলে আমি বাচার তাগিদে গাছ বেয়ে পালিয়ে এসে ডাইবেশন রোডে হেলাল র‌্যাবের বাসায় আশ্রয় নিলে আমার বাবা খোঁজাখুঁজি করে বিকালে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সাফিয়া আরও অভিযোগ করে আমি দীর্ঘ ১১ মাস পূর্বে অভাবের তারনায় মায়ের মৃত্যুতে বাবা দ্বিতীয় বিবাহ করে বোরহানউদ্দিনের রফিক হাজীর বাসায় কাজের জন্য নিয়ে আসে। আসার পর হতে আমাকে বিভিন্ন কারনে অকারনে মেরে আহত করে হুমকি দেয় যে যদি আমি কাউকে বলি তাহলে আমাকে তার স্ত্রী পূর্বে আমাকে উলঙ্গ করে যে ছবি তোলা হয়েছে তা ইন্টানেটে ছড়িয়ে দিবে। আমি ভয়ে কাউকে বলতে সাহস করিনি।

এ ব্যাপারে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: তায়েবুর রহমান জানান, তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমের দাগ এবং গোপনাঙ্গে অনেক গুলি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিচ্ছি পরবর্তীতে যদি উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন হয় তাহলে ভোলা প্রেরনের ব্যবস্থা করব।

এ ব্যপারে রফিক হাজীর মোবাইলে ঘটনার সত্যতা জানতে চাইলে তার ০১৭৪০৯৯১৭৪৪ নম্বরের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

এ ব্যপারে বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অসীম কুমার সিকদার জানান, আমি ঘটনা শুনে নিজেই হাসপাতালে উপস্থিত হয়ে ভিকটিমের বক্তব্য শুনে মর্মাহত ঘটনাটা খুবই আমানবিক। আইনি ব্যবস্থার পাশাপাশি আসামি গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।