সন্ত্রাস ও মাদক মুক্ত সমাজ গঠনে সকলের সহোযোগীতা চাই : সামসুল আরেফিন

সোহেব চৌধুরী সোহেব চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৮:৪৫ অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০১৯ | আপডেট: ৮:৪৫:অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০১৯
সন্ত্রাস ও মাদক মুক্ত সমাজ গঠনে সকলের সহোযোগীতা চাই : সামসুল আরেফিন

প্রত্যেক শ্রেণী পেশার তরুণ, যুব সমাজ যদি নিজ দায়িত্ব ও কর্তব্য থেকে এগিয়ে এসে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহোযোগীতা করেন তাহলে চরফ্যাসন উপজেলা থেকে মাদককে নির্মূল করে শান্তি ও সমৃদ্ধির একটি সমাজ গঠন করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেন ভোলার চরফ্যাসন সদর থানায় (২৮ এপ্রিল) সদ্য যোগদানকৃত অফিসার ইনচার্জ সামসুল আরেফিন।

শুক্রবার (৩মে) সন্ধ্যায় চরফ্যাসন উপজেলার সংবাদকর্মিদের সাথে পরিচিতি সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরোও বলেন, বর্তমানে আমাদের দেশে মাদকের যে ভয়াবহ অবস্থা দেখা দিয়েছে তা যদি দ্রুত নির্মূল না করা হয় তাহলে এদেশের কিশোর তরুন ও যুব সমাজ ধ্বংস হয়ে যাবে। একসময় বাংলাদেশের শুধু একটি শ্রেণীর মানুষ মাদক গ্রহণ ও বিক্রয় করতো আর বর্তমানে সব শ্রেণীপেশার মানুষই মাদক সেবন ও বিক্রয় জড়িয়ে পরছে। সবচেয়ে দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে আমাদের স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া ছেলেগুলোও মাদকে নেশায় আসক্ত হয়ে পড়েছে। তাই চরফ্যাসন থেকে মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত সমাজ গড়তে সাংবাদিক, শিক্ষক, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, ব্যবসায়ীসহ সকলের সহোযোগীতা কামনা করি।

চরফ্যাসন থানার সাবেক অফিসার ইনচার্জ ম. এনামুল হক দীর্ঘ ৩ বছর ৮ মাসে চরফ্যাসন থেকে মাদকের মূলউৎপাটনের সকল কার্যক্রম করেছেন। যার জন্য মাদক ব্যাবসায়ীদের বড় ধরনের লোকসান গুনতে হয়েছে গত প্রায় ৪ বছরে। হঠাৎ করে গত সপ্তাহে ওসি এনামুল হক এর বদলির খবরে নতুন করে আসার আলো দেখতে পায় চরফ্যাসনের মাদক কারবারিরা।

তিনদিকে নদী ও একদিকে সাগর বেষ্টিত এই উপজেলার গুরুত্ব বুঝে ভোলার পুলিশ সুপার মোক্তার হোসেন পিপিএম ঝালকাঠি গোয়েন্দা শাখা থেকে নিয়ে এসে চরফ্যসনের ওসির দায়িত্ব দিলেন এক সময়ের ভোলার আলোচিত ও সফল অফিসার ইনচার্জ সামসুল আরেফিনকে।

তিনি এর আগে ভোলার সদর থানায় ওসি তদন্ত, ভোলার গোয়েন্দা শাখার ডিআই ওয়ান, ভোলার কৌশলগত গুরুত্বপূর্ণ থানা দৌলতখানে অফিসার ইনচার্জ, চরফ্যসন উপজেলার শষীভুষণ থানায় দীর্ঘ ২বছর ৮ মাস সফলভাবে অফিসার ইনচার্জের দায়িত্বপালন করেন।

এছাড়াও তিনি পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালি ও ঝালকাঠির রাজাপুর থানায় সফলতার সাথে অফিসার ইনচার্জের দায়িত্ব পালন করেন বলেও জানা গেছে।

এদিকে সামসুল আরেফিনের যোগদানে আনন্দ প্রকাশ করে পুলিশ সুপার মোক্তার হোসেন পিপিএম কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন চরফ্যসনের রাজনৈতিক ও বিভিন্ন সামাজিক প্রতিষ্ঠানের নেতারা। সেই সাথে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবেকেও কৃতজ্ঞতা জানান স্থানীয় জনগণ।