লক্ষ্মীপুরে সরকারি সম্পত্তি দখল করে দোকান-ঘর নির্মাণ!

অ আ আবীর আকাশ অ আ আবীর আকাশ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০:৩২ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৩০, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৩৪:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৩০, ২০১৯
লক্ষ্মীপুরে সরকারি সম্পত্তি দখল করে দোকান-ঘর নির্মাণ!

লক্ষ্মীপুর জেলার কমলনগর উপজেলার ৬নং পাটওয়ারী হাট ইউনিয়নের ইসলামগঞ্জ বাজারে সরকারি সম্পত্তি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী এক আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে।

খবরের বিস্তারিত জানা গেছে, পাটওয়ারী হাট ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রাশেদ বিল্লাহ আলমগীরের ভাই ও একই ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হোসেন মাস্টারের ছেলে গিয়াসউদ্দিন স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। সে সুবাদে সরকারি খাস খতিয়ানভুক্ত সম্পত্তি জবর দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করেন।

লক্ষীপুরের কমলনগর উপজেলার পাটওয়ারী হাট ইউনিয়নের ইসলামগঞ্জ (বেড়ির উপর) সরকারি জমি দখল করে দোকানপাট তুলে গিয়াস উদ্দিন ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা করে বিক্রি করছেন। সম্প্রতি আবারো সরকারি সম্পত্তি জবর দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের সময় স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা সালাউদ্দিন দোলন ও সবুজ হোসেন তুফান ফেসবুকে একটি সচিত্র স্ট্যাটাস দিলে এতে গিয়াস উদ্দিন রাগে-ক্ষোভে তাদেরকে মারধর করেন। সালাউদ্দিন আহত হলেও তাকে হাসপাতালে নিতে দেননি গিয়াস উদ্দিন ও তার সহযোগীরা।এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ও তার আত্মীয়স্বজন।

সবুজ হোসেন তুফান অভিযোগ করে বলেন, আমাদের দখলীয় দোকান ঘর থেকে বের করে দিয়ে গিয়াস উদ্দিন অন্যত্রে দোকান ভাড়া দিচ্ছেন।

উপরোক্ত বিষয়ের আলোকে গিয়াস উদ্দিন বলেন- এই দোকানের জমি আমাদের নামে লিজ নেয়া আছে। বেড়ি কিভাবে লিজ নিলেন? এই প্রশ্নের জবাবে গিয়াস উদ্দিন বলেন -আমরা আসলে বেড়ির বাহিরে আছি, তবে সারা দেশে যেভাবে দখল করে আমরাও সেভাবে বেড়িতে দোকান ঘর নির্মাণ করছি। আরেক প্রশ্নের জবাবে গিয়াস উদ্দিন বলেন -আমি নিজ হাতে সালাউদ্দিন দোলন কে মেরেছি। সে আমার কাছে চাঁদা চেয়েছিল।

স্থানীয়দের কয়েকজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন- গিয়াস উদ্দিনরা জোর জুলুমবাজ। তার বাবা ছিল একাত্তরের রাজাকার। তার ভাই স্থানীয় সাবেক চেয়ারম্যান হওয়ার সুবাদে গিয়াসউদ্দিন যাকে তাকে ধরে মারে, জমি অবৈধভাবে জবর দখল করে নেয়, দোকানপাট থেকে মানুষকে বের করে দিয়ে দোকানপাট দখলে নেয়।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন রাজু বলেন- গিয়াস উদ্দিন সরকারি সম্পত্তি জবর দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ এর চিত্র আমি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে জানতে পেরে আমি নিজেই স্বচক্ষে ঘটনার তদন্ত করে এর বাস্তব প্রমাণ পেয়েছি। গিয়াস উদ্দিনের ভাই সাবেক চেয়ারম্যান রাশেদ বিল্লা আলমগীরের বিরুদ্ধে এর আগেও জমি জবর দখল ও দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান রাজু আরো বলেন- যেহেতু ইসলামগঞ্জ বাজারে দোকান ঘরের কারোরই কোনো বৈধ কাগজপত্র নেই এবং পুরো ইসলামগঞ্জ বাজারটি সরকারি খাস খতিয়াভুক্ত।  সেখানে সরকারি খাস সম্পত্তি জবর দখল করে ঘর নির্মাণের বিষয়ে আমি পানি উন্নয়ন বোর্ড সহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করছি।

ইসলামগঞ্জ বাজারে সরকারি খাস জমি জবর দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ ও ছাত্রলীগ নেতাদের মারধরের ঘটনায় কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ইকবাল হোসেন বলেন- আমি ঘটনাটি শুনেছি, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।