সাধারণ পেন্সিলে ছবি আঁকে ‘গোপাল’

সোহেব চৌধুরী সোহেব চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯ | আপডেট: ১২:০৫:পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯
সাধারণ পেন্সিলে ছবি আঁকে ‘গোপাল’

বাগেরহাট জেলার গোবিন্দপুর গ্রামের ছেলে গোপাল কৃষ্ণ পাল। সে খুলনার শহীদ সরওয়ার্দী কলেজ এর বিবিএ ব্যবস্থাপনা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। ছোট বেলা থেকেই সে ছবি আঁকে। আঁকাআঁকি নিয়ে কিছুটা সময় আড্ডা হয় তার সাথে, জানা হয় ছবি আঁকার কিছু গল্প।

চিত্র শিল্প বিষয়ে তার কোনো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা নেই। রেজাল্ট ও আর্থিক অবস্থা ভালো না থাকায় ইচ্ছে থাকা সত্যেও চারুকলায় ভর্তি হতে পারেননি গোপাল। ৭ম শ্রেণীতে পড়ার সময় স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া ও সংস্কৃতি প্রতিযোগিতায় চিত্র অংকনে অংশগ্রহণ করে প্রথম স্থান অধিকার করে। তার পর থেকে অনেক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে থানা পর্যায়ে প্রথম স্থান লাভ করে। এরপর থেকে জাতীয় শিশু প্রতিযোগিতা ২০১০ এ জেলা পর্যায়ে অংশ গ্রহণ করে সকলের উৎসাহ অর্জন করে। নিজের চেষ্টায় আঁকাআঁকি করে পেন্সিল আর রঙতুলির প্রেমে পড়ে যান গোপাল। সে এখন টুকটাক কাজ করে হাত খরচের টাকা আয় করছে ।

গোপাল জানায়, ১০ম শ্রেণীতে পড়ার সময় তার বন্ধুদের অনুরোধে প্রাক্টিক্যাল খাতায় ছবি এঁকে দেই তার পরের বছর অর্থাৎ আমি যখন ইন্টারমিডিয়েট পড়ি তখন ঐ সময়ে এসএসসি পরীক্ষার কিছু প্রাকটিক্যাল খাতা আঁকার অনুরোধ আসে এবং সেগুলো করার জন্য কিছু টাকাও পাই। সেইসাথে আমার আয়ের শুরু হয়, যদি ওগুলো অল্প কিছু টাকা ছিল।

তারপর থেকে প্রাইভেট টিউশনি দিচ্ছি। বর্তমানে ইন্টারনেটের কল্যাণে ইউটিউবে কিছু আঁকা শেখার চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমার আঁকা প্রতিটি ছবিই সাধারণ পেন্সিল দিয়ে করা। পছন্দের কয়েক জন সেলিব্রেটিদের ছবি এঁকে ফেসবুকে কিছুটা পরিচিতি লাভ করেছি যেমন মোশারফ করিম, আ খ ম হাসান, জুই করিম, তামিম ইকবাল, রুবেল হোসেন, চঞ্চল চৌধুরী, জয়া আহসান, সাবিলা নূর, নেইমার, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, ও আরও অনেকে ।

এদের মধ্যে মোশাররফ করিম, তামিম ইকবাল, রুবেল হোসেন তাদের অফিসিয়াল পেজে ছবি আপলোড দিয়েছে। বলিউড অভিনেতা সানন্দ ভার্মা তার ছবি রিটুইট করে লিখেছেন “Good one Gopal”

এছাড়া চঞ্চল চৌধুরী ও জয়া তাদের আঁকা ছবিতে কমেন্ট করে ধন্যবাদ দিয়েছেন। এরপর থেকেই ফেসবুকে টুক-টাক ছবি আঁকার অনুরোধ পাচ্ছি, প্রথম প্রথম এমনিতেই ছবি এঁকে দিতাম। কিন্তু এতে আমার উপর ছবি আঁকার অনুরোধ আনেক বেশি হয়, যার কারণে ছবি আঁকার ভবিষ্যৎ দিক চিন্তা করে অর্থাৎ গ্রাফিক্স ট্যাবলেট ও অন্যান্য সরঞ্জাম কেনার কথা চিন্তা করে বর্তমানে স্কেচ প্রতি টাকা নেওয়া কথা ভাবছি। যদিও টাকা দিয়ে ছবি আঁকানো মানুষের সংখ্যা খুবই কম।

আপাতত নিজে নিজে শিখছি, শেখাচ্ছি । ইচ্ছে আছে ছবি আঁকার মাধ্যমে ভাল কিছু করার। সুযোগ সুবিধা পেলে আমাদের গ্রামে আর্ট একাডেমি খোলার।