ঘুমন্ত অবস্থায় অগ্নিকান্ড: অবশিষ্ট থাকলো না আর কেউ!

হাসান পিন্টু হাসান পিন্টু

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১১:৫৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০১৯ | আপডেট: ১১:৫৭:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০১৯
ঘুমন্ত অবস্থায় অগ্নিকান্ড: অবশিষ্ট থাকলো না আর কেউ!

ভোলার লালমোহনে দুর্বৃত্তের আগুনে গুরুতর আহত আংকুরা বেগম (৪০)’ও চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গিয়েছেন। রবিবার বিকাল ৩ টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

আংকুরার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন তার মামাতো ভাই স্থানীয় তরী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আমির হোসেন। এ নিয়ে অগ্নিদগ্ধের ঘটনায় ৩ জনেরই মৃত্যু হয়। এদিকে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি।

গত শুক্রবার রাতে দুর্বৃত্তের দেওয়া আগুনে উপজেলার চরভূতা ইউনিয়নের খারাকান্দি এলাকায় সুরমা (২৫) নামের এক গৃহবধূ নিহত হয়। এসময় গুরুতর আহত হয় নিহত সুরমার বড় বোন আংকুরা ও আংকুরার মেয়ে খাদিজা। শনিবার উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে মারা যান আংকুরা বেগমের মেয়ে খাদিজা (৮)।

বরিশাল থেকে গুরুতর আহত আংকুরাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার বিকাল ৩ টায় মার যান আংকুরা।

এদিকে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় নিহত সুরমার লাশ শনিবার সন্ধ্যায় তার নিজ বাড়ি উপজেলার লালমোহন সদর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের আফাজ উদ্দিন পন্ডিত বাড়িতে দাফন করা হয়। ভাগ্নী খাদিজার লাশ রবিাবার সন্ধ্যায় দাফন করা হবে বলে জানা যায়।

এবিষয়ে লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর খায়রুল কবীর বলেন, ঘটনাটি হৃদয় বিদারক। তবে এর সাথে যারা জড়িত তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছেন।